শিশু কন্যাকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা

0

মেহেরপুর প্রতিনিধি :: মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ধানখোলা ইউনিয়নের কসবা গ্রামে আদুরী নামের এক মা তার এক বছরের শিশু কন্যাকে পুকুরের পানিতে চুবিয়ে হত্যার পর নিজেই আত্মহত্যা করেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। ‌

আজ বুধবার দুপুর ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে। আত্মহননকারী মা হলেন চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার বড়গাংনী গ্রামের লোকমান হোসেনের স্ত্রী। নিহত সুমাইয়া তার মেয়ে।

স্থানীয়দের ধারণা, স্বামীর সাথে পারিবারিক কলহের কারণে অভিমান করে নানার বাড়ি গাংনী উপজেলার কসবা গ্রামের কোরবান আলীর বাড়িতে যায়।

সেখানে গিয়ে দু:সহ স্মৃতি ভুলতে এক বছর বয়সী শিশু কন্যা সুমাইকে বাড়ির পাশের আজিবার আলীর পুকুরে চুবিয়ে হত্যা করে শেষে নিজে গলায় ওড়না দিয়ে আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন।

এ ব্যাপারে গাংনী থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, প্রথমে বসত ঘর থেকে মায়ের লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে শিশুটিকে খুঁজতে গিয়ে দেখা যায় পুকুরের পানিতে তার মৃতদেহ ভাসছে।

এ থেকে ধারণা করা হচ্ছে ক্ষোভে বশবর্তী হয়ে শিশুটিকে হত্যার পর তার মা আত্মহত্যা করে থাকতে পারে। দুজনের লাশ উদ্ধার করে মেহেরপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্ত হলে বোঝা যাবে শিশুটিকে হত্যা করা হয়েছে কিনা?


Warning: A non-numeric value encountered in /home/presvdfgsbd24/public_html/bangla/wp-content/themes/Newspaper/includes/wp_booster/td_block.php on line 1009

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here