স্ত্রীর ছোড়া গরম পানিতে দগ্ধ হয়ে স্বামীর মৃত্যু

0

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি :: মুন্সীগঞ্জের সদর উপজেলার আধাইরাতলা গ্রামে স্ত্রী মিনু বেগমের ছোড়া মরিচ ও লবণ মিশ্রিত ফুটন্ত গরম পানিতে দগ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন নাসির উদ্দিন (৫০) মারা গেছেন।

৫ দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে শেষ পর্যন্ত নাসিরের আজ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে তার মৃত্যু হয়।

নিহত নাসির উদ্দিন সদর উপজেলার পঞ্চসার ইউনিয়নের আধাইরাতলার বাসিন্দা। সে স্ত্রী মিনু বেগমকে (৩৫) নিয়ে সেখানে বসবাস করতেন।

এলাকাবাসি সূত্রে জানা গেছে, গেল  ১৪ সেপ্টেম্বর রাতে মিনু বেগম ঘুমন্ত অবস্থায় তার স্বামী নাসির উদ্দিনের শরীরে মরিচ-লবণমিশ্রিত ফুটন্ত গরম পানি ঢেলে দেয়। এতে মারত্মক আহত হয় নাসির।

রাতেই তাকে মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। এরপর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয় তাকে।

সেখানকার চিকিৎসকরা জানান, গরম পানিতে শরীরের ৪১ শতাংশ পুড়ে যায়। ৫দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জালড়ে অবশেষে আজ মৃত্যুর কাছে হার মেনে চলে যায় না ফেরার দেশে।

এ ঘটনার পরপরই স্ত্রী মিনু বেগম চম্পট মেরেছে। তবে এলাকাবাসির ধারনা পরকীয়ার কারণে এমন নিষ্ঠুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে মিনু বেগম। এ বিষয়ে ঘটনার পরের দিনই মিনু বেগমকে প্রধান আসামি করে নাসিরের ছোট ভাই শাহেব উদ্দিন বাদী হয়ে মুন্সীগঞ্জ সদর থানায় একটি হত্যাচেষ্টা মামলা রুজু করেন।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসাইন জানান, এই ঘটনায় একটি নাসিরের ভাই শাবে উদ্দিন বাদী হয়ে যে মামলাটি করেছেন এটা এখন হত্যা মামলায় টার্ন হবে। আসামি মিনু বেগম পলাতক তাকে আটকের চেষ্টা চলছে।


Warning: A non-numeric value encountered in /home/presvdfgsbd24/public_html/bangla/wp-content/themes/Newspaper/includes/wp_booster/td_block.php on line 1009

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here