আসলাম চৌধুরীর সমাবেশে হামলা : নুরুল আমিন সহ ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা

0

চট্টগ্রাম অফিস :
বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব লায়ন আসলাম চৌধুরীর মুক্তির দাবীতে সমাবেশে দলীয় নেতাকর্মীদের উপর হামলার অভিযোগে মিরসরাই বিএনপি নেতা নুরুল আমিন সহ ১২জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন হামলায় আহত চট্টগ্রাম উত্তর জেলা যুবদলের সদস্য লায়ন দেলোয়ার হোসেন। রবিবার (৫ নভেম্বর) কোতোয়ালী থানায় দায়েরকৃত মামলা নং ১৬, তারিখ ০৫/১১/১৭। সোমবার (৬ নভেম্বর) দুপুরে মুঠোফোনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জসীম উদ্দিন পিপিএম।

এজহার সূত্রে জানা গেছে, মামলার আসামীরা হলেন – মুলহোতা মিরসরাই উপজেলার বহিষ্কৃত চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন চেয়ারম্যান, জেলা যুবদলের সভাপতি কাজী সালাহ্ উদ্দিন, দিদারুল আলম মিয়াজী, শাহীনুর কবির, মোমিন, মোঃ রানা ক্যাডার, মোহন দে, মোঃ রফিক, ইফতেখার হোসেন প্রকাশ জিপশন, রিয়াদ , টিটু, জামসেদ আলম এবং অজ্ঞাতনামা ৯/১০জন।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব আসলাম চৌধুরীর মুক্তির দাবীতে শনিবার (৪ নভেম্বর) বিকেলে দলীয় কার্যালয় নাসিমন ভবনের সামনে সমাবেশের আয়োজন করে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা বিএনপি। উত্তর জেলা বিএনপির সাবেক সহসভাপতি ও চাকসু ভিপি মো.নাজিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

মুক্তিযোদ্ধা দলের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি লায়ন মনিরুল ইসলাম ইউসুফের নেতৃত্বে মিরসরাইয়ের বিএনপি-যুবদল-ছাত্রদলের সহ¯্রাধিক নেতাকর্মী নিয়ে বিশাল শো-ডাউন ও মিছিল করে সমাবেশ স্থলে প্রবেশ করেন। নাসিমন ভবনের সামনে মাঠে প্রবেশের সময় নুরুল আমীনের সমর্থক কিছু নেতা কর্মী সমাবেশে প্রবেশে বাধা দিলে বাকবিতন্ডা শুরু হয়। অতর্কিতভাবে ইউফুফ ও তার সমর্থকদের উপর হামলা চালানো হয়। এতে অন্তত ১২ নেতাকর্মী আহত হয়। এসময় মনিরুল ইসলামের মাথায় চেয়ার দিয়ে আঘাত করা হয়। পরে মঞ্চে উপস্থিত শীর্ষ নেতাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। এতে ইউসুফ সহ কমপক্ষে ১০/১২জন আহত হয়।

আহতরা হলেন – মুক্তিযোদ্ধা দলের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি লায়ন মনিরুল ইসলাম ইউসুফ, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা যুবদলের সদস্য লায়ন দেলোয়ার হোসেন, উপজেলা যুবদল নেতা হারুন অর রশিদ, জাহাঙ্গীর আলম, জাবেদ প্রমুখ।

বহিস্কৃত মিরসরাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল আমিনের সমর্থকরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন কেন্দ্রীয় নেতা মনিরুল ইসলাম ইউসুফ।

এদিকে, জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি লায়ন মনিরুল ইসলাম ইউসুফ জানান, আসলাম চৌধুরীর মুক্তির দাবীতে সমাবেশে আমার উপর এবং নেতাকর্মীদের উপর হামলার ঘটনায় নুরুল আমিন চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছি। কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ-সভাপতি মোঃ শাহজাহান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী এবং বিএনপির চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীমের কাছে পাঠানো হয়েছে।

 

আসলাম চৌধুরীর মুক্তির দাবীতে সমাবেশের প্রধান অতিথি বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, অনুষ্ঠান চলাকালে বিশৃঙ্খলার ঘটনা ঘটেছে। কেউ যদি অভিযোগ করে তাহলে ব্যবস্থা নিব।

বিএনপির চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম বলেন, হামলার ঘটনাটি সাংবাদিকদের সামনে ঘটেছে। মুক্তিযোদ্ধা দলের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি লায়ন মনিরুল ইসলাম ইউসুফ লিখিত অভিযোগ করেছেন। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নিব।

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জসীম উদ্দিন পিপিএম জানান, আসলাম চৌধুরীর সমাবেশে হামলার ঘটনায় লায়ন দেলোয়ার হোসেন নামক ভূক্তভোগী বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। তদন্ত করে আসামীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here