দু’ভাবে বিচার কাজ চলবে হাইকোর্টে

0

ঢাকা: শারীরিক উপস্থিতি ছাড়া (ভার্চ্যুয়াল) এবং শারীরিক উপস্থিতিতে হাইকোর্টে বিচার কাজ চলবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগের বিচারপতিদের অংশগ্রহণে বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) ফুলকোর্ট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।প্রধান বিচারপতির সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সুপ্রিম কোর্ট সূত্র জানায়, বিচারপতিদের মতামত অনুসারে দুই পদ্ধতিতে আগামী সপ্তাহ থেকে বিচার কাজ শুরু হতে পারে।

মহামারি করোনাকালে ২৬ মার্চ থেকে সরকার সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে। এর সঙ্গে মিল রেখে আদলতেও সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়।

পরে দফায় দফায় সাধারণ ছুটির মেয়াদও বাড়ানো হয়।এর মধ্যে সরকার অধ্যাদেশ জারির পর ১১ মে থেকে আদালতে ভার্চ্যুয়াল বিচার কাজ শুরু হয়।

ওই অধ্যাদেশটিকে পরে আইনে পরিণত করা হয়।  সবশেষ গত ১৬ মে দেওয়া এক বিজ্ঞপ্তিতে সাধারণ ছুটির মেয়াদ ৩০ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়। তবে সরকার ৩০ মে মাসের পর সাধারণ ছুটি আর না বাড়ালেও আদালত অঙ্গনে নিয়মিত কার্যক্রমের পরিবর্তে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ভার্চ্যুয়াল বিচার কাজ অব্যাহত থাকবে জানিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন।

কিন্তু গত ৩০ জুলাই অধস্তন আদালতে ৫ আগস্ট থেকে শারীরিক উপস্থিতিতে বিচারকাজ চালুর সিদ্ধান্ত দেয় সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন। সে অনুসারে অধস্তন আদালতে বিচার কাজ শুরু হয়।

অপরদিকে ৩ আগস্ট এক বিজ্ঞপ্তিতে সুপ্রিম কোর্ট খোলার বিষয়ে আলোচনার জন্য ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগের বিচারপতিদের অংশগ্রহণে ফুলকোর্ট সভা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানায়। সে অনুসারে বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) ফুলকোর্ট সভা অনুষ্ঠিত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here